আজ- বুধবার, ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান,কর্মসংস্থানের সুযোগও তৈরি হবে


উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান কর্মসংস্থানের সুযোগও তৈরি হবে

সমাজের এমন কোনো ক্ষেত্র নেই, যেখানে করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েনি। দেশে প্রতিবছর প্রায় সাড়ে সাত লাখ উচ্চশিক্ষিত তরুণ কর্মক্ষেত্রে প্রবেশের জন্য তৈরি হচ্ছে। কিন্তু সবার তো আর কর্মসংস্থান হচ্ছে না। ফলে বাড়ছে কর্মক্ষম বেকারের সংখ্যা। করোনা মহামারির কারণে চাকরির বাজার থমকে আছে। সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানেই লোক নিয়োগ কার্যক্রম প্রায় বন্ধ। বিসিএসসহ বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষাও স্থগিত হয়ে গেছে। নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিতের কারণে বিসিএস জটে পড়েছে সরকারি কর্ম কমিশন। লকডাউনের কারণে ৪২তম বিসিএসের ভাইভা পরীক্ষা স্থগিত করতে হয়েছে। ৩৮তম বিসিএসের নন-ক্যাডার ফলাফল আটকে আছে দীর্ঘদিন। রাষ্ট্রীয় মালিকানার ব্যাংকগুলোর বড় একটি নিয়োগের পরীক্ষা স্থগিত হওয়ায় চাকরিপ্রত্যাশীদের অনেকে কাজ ছাড়াই ঘরবন্দি। সরকারের তরফ থেকে নতুন কোনো সিদ্ধান্ত না হওয়ায় তাদের উদ্বেগ ও হতাশা বাড়ছে। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আসছে না। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বন্ধ থাকায় হতাশা ক্রমেই বাড়ছে। এই অনিশ্চয়তার মধ্যে আবার অর্থনৈতিক সংকটও সামলাতে হচ্ছে চাকরিপ্রার্থীদের।

তরুণদের শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে সরকারি সুযোগ-সুবিধা কাজে লাগিয়ে উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্যোক্তা সৃষ্টি হলেই নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগও তৈরি হবে। শিক্ষিত তরুণরা ব্যবসা শুরু করলে অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে সেটি হবে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এরই মধ্যে ঋণের সুদের হার কমিয়ে সিঙ্গল ডিজিট করা হয়েছে। আমাদের ঐতিহ্যবাহী পণ্যের পাশাপাশি উন্নত বিশ্বে ভোক্তাদের চাহিদানির্ভর শতভাগ রপ্তানিমুখী পণ্য উৎপাদনে মনোনিবেশ করা যেতে পারে। এসএমই শিল্পের মাধ্যমে সুনীল অর্থনীতির বিকাশ ঘটানো যায়। উচ্চতর মূল্য সংযোজনের লক্ষ্য নিয়ে স্বল্প উৎপাদন খরচের সঙ্গে উন্নত প্রযুক্তির সংযোগ ঘটিয়ে গ্লোবাল ভ্যালু চেইনের অংশীদার হওয়ারও সুযোগ আছে আমাদের দেশে।

কিছুদিন আগে তরুণ জনগোষ্ঠীর দক্ষতা উন্নয়ন ও উদ্যোক্তা তৈরির দুটি প্রকল্পে বড় অঙ্কের ঋণ অনুমোদন দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। এ ছাড়া জামানত ছাড়া ঋণ নিয়ে যে কেউ নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে, কাজ করতে পারবে।

সার্বিক কর্মসংস্থানে করোনা পরিস্থিতির নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও কর্মসংস্থান সহজে আগের জায়গায় ফিরবে না। বিশেষজ্ঞদের মতে, উচ্চশিক্ষিত তরুণদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে পারলে দেশে নতুন কর্মসংস্থানেরও সুযোগ সৃষ্টি হবে। আমরা আশা করব, তরুণ উদ্যোক্তা তৈরি করতে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এই রকম আরও খবর

সর্বশেষ খবর

বিশেষ খবর