আজ- বুধবার, ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নেপালে করোনায় আক্রান্ত ১২০০% বেড়েছে


।। ডেস্ক রিপোর্ট ।।

গত এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ের তুলনায় ভারত সীমান্ত লাগোয়া দেশ নেপালে গড়ে দৈনিক করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১২০০ শতাংশ বেড়েছে। জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাত্ত বিশ্লেষণ করে এই হিসাব তুলে ধরেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী নেপালে গতকাল সোমবার একদিনে সর্বাধিক ৭ হাজার ৩৮৮ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত মানুষ শনাক্ত হয়েছে।সিএনএন-এর হিসাবে দেখা যাচ্ছে, প্রতিদিন গড়ে দেশটির প্রতি দশ লাখ মানুষের মধ্যে ২০০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হচ্ছে।

নেপাল ভারতের প্রতিবেশী দেশ। মহামারি করোনার দ্বিতীয় দফার প্রকোপে গোটা ভারতের অবস্থা এখন বিপর্যস্ত। ভারতেও এপ্রিলের শেষদিকে দৈনিক গড়ে প্রতি দশ লাখের মধ্যে নেপালের মতোই দুই শতাধিক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী গত ২২ এপ্রিল ভারতেও গড়ে প্রতি দশ লাখ মানুষের ২০৬ জনের দেহে মহামারি করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়। মাথাপিছু আক্রান্তের হারে দু’সপ্তাহে আগে ভারতে অবস্থা যেমনটা ছিল এখন নেপালের অবস্থান তেমন।

গত ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চে দক্ষিণ এশিয়ার ছোট দেশ নেপালে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা কমতে শুরু করেছিল। তখন প্রতিদিন নতুন করে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৫০-১০০ এর মধ্যে। কিন্তু এপিলের মাঝামাঝি ভারতের মতো দেশটিতেও প্রকোপ শুরু হয়।

ভারতে করোনার অতিসংক্রামক ‘ডাবল মিউট্যান্ট’ যে ধরনটির প্রাদুর্ভাব শুরু হয়েছে, ভারতের বাইরে প্রথম দেশ হিসেবে ওই ধরনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল নেপালে। ধারণা করা হচ্ছে যে, নেপালেও ভাইরাসটির প্রকোপের নেপথে রয়েছে ভারতীয় ওই ধরন।

সিএনএন লিখেছে, যেভাবে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে তাতে করে যদি অল্প জনসংখ্যার নেপালেও ভারতের মতো করোনার প্রকোপ শুরু হয় তাহলে দেশটির দুর্বল স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ও অবকাঠামোর কারণে গোটা স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়তে পারে।

সোমবার নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শার্মা ওলি আগামী ৬ মে মধ্যরাত থেকে ১৪ মে পর্যন্ত সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এমনটা চলতে থাকলে দেশটির পর্যটননির্ভর অর্থনীতিও মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

ডেইলি / এইচ


এই রকম আরও খবর

সর্বশেষ খবর

বিশেষ খবর