আজ- বুধবার, ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিক বন্ধুরা! আর কত ধিক্কার,কত চাপ সইবেন!

  • 10
    Shares

 

।। গোলাম সারওয়ার ।।

গণমাধ্যম এখন কর্পোরেট সেক্টর। লাভযোগ্য ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। বসুন্ধরা গ্রুপ। আপনারা সেলসম্যান।ভুলে যান আপনারা সাংবাদিক।সম্ভব হলে অন্য পেশায় চলে যান। এই শতাব্দীতে সাংবাদিকদের খাওয়া নেই।সেই যুগ শেষ।এখন আনভীর,তানভীরদের পদলেহন করেই চলতে হবে।পারলে থাকেন,নইলে ছেড়ে দিন।
এটা বিক্রি হওয়ার যুগ।বিশ্বায়নের দূত।খবর এখন বিক্রি হয়।খবর এখন বিপণন পণ্য।কিসের পলিটিক্যাল রিপোর্টিং,কিসের অনুসন্ধান রিপোর্ট! বাদ দিন।রেইন ড্যান্স ক্লাবে যান,নাইট পানশালায় যান,স্টারদের মিলনমেলায় যান।বিক্রয়যোগ্য অনেক খবর পাওয়া যাবে।এটাই বাস্তব।এটাই ভবিতব্য। We are now the victims of GLOBALISATION.সংবাদমাধ্যমের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ছাড়া বিশ্বায়ন অচল।তাই ভেঙে দেয়া হচ্ছে মিডিয়ার কোমড়।
ভুলে যান সাংবাদিকতার স্বর্ণযুগের কথা।ভুলে যান সাংবাদিকদের ঐতিহ্যের কথা।কিসের Fourth state.ভোল বদলান।বদলে যান।বাদ দিন রাজনৈতিক কচকচি।ভুলে যান জ্ঞানের কথা।জীবনের গতি খুঁজেন।জীবনকে চিনতে শিখেন নতুন পথে।দরকারে সঙ সাজেন।কি দরকার নীতি,শালীনতা,গতানুগতিকতার ইতিহাস, ঐতিহ্যকে আঁকড়ে থাকার।এখন শুধু স্লোগানের দিন।খবরের ভাষা বদলে দেয়ার দিন।সংবাদের সংজ্ঞা বদলে দেয়ার দিন।সাংবাদিকতার নতুন ইতিহাস রচনা করার দিন।ধ্যান-ধারণা পাল্টে দেয়ার দিন।
এখন মিডিয়ার জগত মাল্টি বিলিয়োনেয়ারদের হাতের মুঠোয়।কোনো মিশন মানা হবেনা।কোনো মানবিকতা চলবেনা।আনভীররা এখন আমার-আপনার মা-বোনের ইজ্জত কেড়ে নিলেও আপনারা চোখ বন্ধ করে থাকবেন।গণধিকৃত হবেন।সাংবাদিকতা এখন নতুন করে শিখতে হবে।গতানুগতিক ঐতিহ্যবাহি মূলধারা থেকে সরে আসুন।বিকৃত চাহিদার সম্মিলন না ঘটাতে পারলে ছিটকে পড়বেন আপনারা।
খবরের জগত সমান্তরাল নয় কখনই।সাংবাদিকতার ধারাবাহিকতাও বিবর্তনের শরিক।বিস্ময়কর পরিবর্তন তাই না?এই পরিবর্তনের জ্বালা সব সাংবাদিক সইতে পারবেননা।যারা সইতে পারবেন তারাই টিকে থাকতে পারবেন।আর যারা সহ্য করতে পারবেননা,তারা বুক চাপড়ে চাপড়ে বলতে থাকেন,
“দাও ফিরে সে অরণ্য,লও হে নগরি”।

লেখক: সাংবাদিক। 


  • 10
    Shares

এই রকম আরও খবর

সর্বশেষ খবর

বিশেষ খবর